সারা পৃথিবীর সুন্দর কিছু পাখির ছবি এবং নাম

পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের পাঁচটি দৃষ্টিনন্দন পাখির ছবি আপনাদের দেখাবো। একইসাথে ফটোগ্রাফারের নাম, নিবাস এবং যে ক্যামেরা দিয়ে ছবিটি তোলা হয়েছে সেটিও তুলে ধরা হবে। তার আগে দুটি উক্তি শেয়ার করি-

Dejan Stojanovic তার লেখা  The Creator এ বলেছেন-

Heavenly bodies are nests of invisible birds.

রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেছেন-

বাইরে এবং বুকের মধ্যে হিয়ার ভেতর…হিয়ার মধ্যে হারানো এক হলদে পাখি উড়ছে বসছে দুলছে, যেন শৈশবে সেই দোলনা খেলা… হায়রে আমার বয়স হয় না!

বুনো হাস

উপরের ছবিটি বুনো হাসের। ৫১ বছর বয়সী ভদ্রলোক Antonios Ntoumas ছবিটি তুলেছেন Fujifilm x-T20 ক্যামেরা দিয়ে। তিনি বসবাস করেন IOANNINA তে।

ফ্লেমিঙ্গো

এটি ফ্লেমিঙ্গো পাখির ছবি। চিত্রগ্রাহকের নামের জায়গায় খুঁজে পাচ্ছি Alexas fotos. Nikon D7200 ক্যামেরা দিয়ে তোলা হয়েছে।

 

সারস পাখি

ধূসর মুকুটের সারস পাখি।  জার্মান চিত্রগ্রাহক Ane Frank Winkler এর তোলা স্থিরচিত্র এটি. যে ক্যামেরাটি ব্যবহার করা হয়েছে সেটি হচ্ছে- Canon EOS-1d.

হামিং বার্ড

চিত্রটি হামিংবার্ডের। ফটোগ্রাফারের নাম ডমিনিক হফম্যান, তিনি ডাচল্যান্ডের বাসিন্দা। এটি Nikon D3s ক্যামেরায় তোলা।

মাছরাঙা

আমাদের চিরপরিচিত মাছারাঙা। Timo Schlüter এই ছবিটি তুলেছেন NIKON D3100 ক্যামেরা দিয়ে। টিমো ডানল্যান্ডের অধিবাসি।

প্যাঁচা

পেঁচার এই ছবিটি তোলা হয়েছে Nikon 7200 ক্যামেরা দিয়ে। চিত্রগ্রাহক Alexas Fotos তার ছবিগুলোকে সম্মানের সাথে ব্যবহার করতে বলেছেন। ব্যবহারের অনুমতি দেয়ায় তাকে আমরা ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আরো পড়ুন-  কুয়াশায় ঢাকা ব্রিজের ছবি

ম্যাকাউ পাখি

উপরে যেটি দেখছেন এর নাম হলুদ ম্যাকাউ পাখি। ফটোগ্রাফার Ilona ছবিটি তুলেছেন Fujifilm X-T10 ক্যামেরা দিয়ে। তার বসবাস মঙ্গলগ্রহে, দাবি অন্তত তাই।

আপনাদের ভালো লাগলে আরো বিভিন্ন ধরণের ছবি আমরা আপনাদের ভবিষ্যতে দেখানোর চেষ্টা করবো। এর আগে আমরা বিভিন্ন ফুলের ছবি দেখিয়েছিলাম, খাবার, সমুদ্র, পাহাড় ইত্যাদি ছবিও দেখানোর পরিকল্পনা আছে। কমেন্ট করে আপনাদের পছন্দের ছবিটি সম্পর্কে জানাতে ভুলবেন না।

 

admin

আমার সম্পর্কে তেমন কিছু বলার নেই। লিখতে পারি না, তাই সবার লেখার জন্য প্ল্যাটফর্ম তৈরির চেষ্টা করছি।

Leave a Reply

error: Content is protected !!