গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ উপায়- ইউনিক আর্টিকেল লিখুন

গুগল এডসেন্স পেতে হলে একটা সময় ইংরেজী আর্টিকেল লিখতে হতো, এখন বাংলাতে লিখেই এডসেন্স পাওয়া যাচ্ছে। এই লেখাটিতে আমি এডসেন্স পাওয়ার উপায় আপনাদের জানাবো। পুরো ব্যাপারটিকে কয়েকটি ধাপে ভাগ করি-

প্রথম ধাপঃ একটি ব্লগ/ওয়েবসাইট থাকা লাগবে, না হলে কিসের জন্য এডসেন্স নেবেন(ইউটিউব চ্যানেল থাকলেও হোস্টেড এডসেন্স পেতে পারেন)।গুগোলের ব্লগারে একটি ব্লগ খুলে নিতে পারেন(হোস্টিং কিনে ওয়ার্ডপ্রেসেও ব্লগ খুলতে পারেন)। ডোমেইন .blogspot হলেও হবে, চাইলে টপ লেভেল যেকোন ডোমেইন কিনে নিতে পারেন, সেটি আপনার সাইটের এডসেন্স পাওয়া সহজ করে দেবে। 

যদিও এডসেন্স পাওয়ার কথা বলছি, এটি কেজি দরে আম-আপেলের মত কিনে খাওয়ার জিনিস না। এডসেন্স এর মালিক গুগোল, আপনি তাদের সাথে Partner হিসেবে চুক্তি করবেন। যা বলছি সব তাদের পার্টনার হওয়ার শর্ত

দ্বিতীয় ধাপঃ ৫০০+ শব্দে ১০ টি ইউনিক আর্টিকেল লিখে ফেলুন। কোন ধরণের কপি করার চেষ্টা করবেন না। ইংরেজী থেকে অনুবাদ না করলেও ভালো হয়। কনটেন্ট ইজ দ্যা কিং- এগুলোই আপনার গুগোল সার্চে ভিজিটর বাড়ানোসহ সবকিছুর কেন্দ্রবিন্দুতে। তাই, এমনিতেই আপনার সবসময় মনঃযোগ দিয়ে লেখা উচিত। 

তৃতীয় ধাপঃ আপনার সাইট যদি ব্লগস্পটে হোস্ট করা হয় তাহলে সুন্দর দেখে একটি কাস্টম থিম লাগিয়ে দিন, আখেরে মঙ্গল হবে। সাইটের স্পিড যাতে ভালো থাকে সেটা খেয়াল রাখবেন, অযথা ভারী করে ফেলবেন না। মেনু, সাইডবার সব ঠিকঠাক করে ফেলুন যাতে দেখতে ভালো লাগে। 

চতুর্থ ধাপঃ গুগোল ওয়েবমাস্টারে সাইট সাবমিট করে দিন। ৮-১০ দিন অপেক্ষা করুন। এর মাঝে আরো কিছু আর্টিকেল লিখে ফেলতে পারেন। একটি ফেসবুক পেজ, একটি টুইটার একাউন্ট তৈরি করে ফেলতে পারেন। কিছু সাইটে গেস্ট পোস্ট করে সেখান থেকে প্রাসঙ্গিক কিছু ব্যাকলিংক আনতে পারেন। এরপর দেখবেন আপনার সাইট সার্চে আসছে, ভিজিটর আসছে।

পঞ্চম ধাপঃ এবারে এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করে ফেলুন- এই যে লিংক । কয়েকদিন অপেক্ষা করুন, আশা করছি হতাশ হবেন না।এডসেন্স পেয়ে গেল মানে আপনি কোটিপতি হয়ে গেলেন ব্যাপারটা এমন না মোটেও। মনঃযোগ দিয়ে লিখতে থাকুন, শিখতে থাকুন আপনাকে দিয়ে হবে। 

অঘোষিত কিছু সত্যঃ ব্লগস্পটের চেয়ে ওয়ার্ডপ্রেসের(হোস্টিং কিনে যেগুলো বানানো হয়) সাইট বেশী এডসেন্স পায়, ফ্রি ডোমেইন নামের চেয়ে টপ লেভেল ডোমেইন এবং ব্লগারের ডিফল্ট থিমের চেয়ে কাস্টম থিমের ব্লগগুলোতে বেশী এডসেন্স পার্টনার দেখা যায়

উপরে যেগুলো বললাম সব কিছুর চেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে ইউনিক কনটেন্ট আর ভিজিটর। এডসেন্স এর পার্টনার হওয়া খুবই সহজ, যারা সোনার হরিণ বলেন তারা মিথ্যা বলেন। বাংলা সাইটেও এখন কোন সমস্যা না। 

 
আরো পড়ুন-  বাংলাদেশী চ্যানেলের জন্য সেরা ইউটিউব MCN কোনটি?

admin

আমার সম্পর্কে তেমন কিছু বলার নেই। লিখতে পারি না, তাই সবার লেখার জন্য প্ল্যাটফর্ম তৈরির চেষ্টা করছি।

Leave a Reply

error: Content is protected !!